গর্ভবতী হতে ম্যাকডোনাল্ডসের ফ্রেঞ্চ ফ্রাই খাচ্ছেন নারীরা!

By: আন্তর্জাতিক ডেস্ক 2018-01-04 03:03:31 আজব খবর

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে গর্ভবতী হতে নারীরা এখন এক আজব পদ্ধতি অনুসরণ করছেন। চ্যানেলমম ডটকম-এর এক সমীক্ষায় জানা গেছে, যৌনমিলনের পর গর্ভবতী হতে যুক্তরাষ্ট্রে নারীরা প্রচুর পরিমাণে ম্যাকডোনাল্ডস-এর ‘ফ্রেঞ্চ ফ্রাই’ খাচ্ছেন। তারা মনে করেন, এই চিপস-এ যে লবণ ব্যবহার করা হয়, তা নাকি মহিলাদের প্রজননে সাহায্য করতে পারে।

যদিও এই দাবির কোনো সত্যতা রয়েছে বলে মনে করেন না গাইনোকলোজিস্টরা। বরং তাদের মতে, এটা স্রেফ গুজব। ইউটিউবে বিভিন্ন ‘লাইফ হ্যাক’ চ্যানেলগুলো এই ধরনের ভ্রান্ত প্রচার করে সস্তায় জনপ্রিয়তা পেতে চাইছেন বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। বস্তুত, গর্ভবতী হওয়ার পিছনে জনপ্রিয় মার্কিন ফুড চেন-এর ফ্রাঞ্চ ফ্রাইয়ের অন্তত কোনো ভূমিকা নেই বলেই তাদের মত। বিশেষজ্ঞদের একাংশ আবার বলছেন, যৌন মিলনের পর নারীদের মশলাদার কিছু খেতে ইচ্ছা করে। হতে পারে, সে জন্যই ফ্রাই খাচ্ছেন তারা।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নারীরা গর্ভবতী হতে ইদানীং আজব কিছু কাণ্ডকারখানা ঘটাচ্ছেন। চ্যানেলমম ডটকম ওয়েবসাইটটি সেরকমই কিছু ‘ট্রেন্ড’ প্রকাশ্যে এনেছে। মিলনের পর মার্কিন নারীরা প্রায় তিন মিনিট পা’দুটি উপরের দিকে তুলে রাখছেন। তারা মনে করছেন, এভাবে তারা প্রজননশীল হতে পারবেন। যারা এরকম করছেন, তাদের সংখ্যা কম নয়, প্রায় ৫৮%। ৩৭% মহিলা আবার মিলনের পর প্রতিদিন হট চকোলেট খেয়ে থাকেন। আর ৩৭% মহিলা প্রতিদিন আনারসের জুস পান করে ভাবছেন, এভাবে তারা সন্তানের মা হতে পারবেন।

টিনএজাররাও এই দৌড়ে পিছিয়ে নেই। প্রতি ১০ জনের মধ্যে একজন টিনএজার রাতে বিছানায় মোজা পরে ঘুমোতে যাচ্ছে। কেউ কেউ বিছানার চাদর ও পোশাকে সবুজ রঙয়ের আধিক্য আনছেন। ১৫% মহিলা রাতে কোনো আলো না জ্বালিয়ে ঘুমোচ্ছেন। ৭% মহিলা টানা এক মাস মদ্যপান থেকে বিরত থাকছেন মা হওয়ার আকাঙ্ক্ষায়। এমনকি, কয়েকজন মহিলা তো মনে মনে নিজেকে এটা ভাবতে জোর করছেন যে, ‘আমি কোনোমতেই গর্ভবতী হব না।’ এরকম আজব ভাবনার কারণ, তারা মনে করছেন মা না হতে চাওয়াটাই তাদের মা হতে সবচেয়ে বেশি সাহায্য করবে।

আমেরিকায় প্রতি বছরের ২ জানুয়ারি জাতীয় সন্তান দিবস পালিত হয়। সেই উপলক্ষ্যেই এই প্রতিবেদনটি প্রকাশ করেছে চ্যানেলমম ডটকম। ভাবতে অবাক লাগে, আজকের দিনে দাঁড়িয়ে একটি সভ্য দেশের নাগরিকরা স্রেফ কিছু গুজবকে গুরুত্ব দিয়ে মা হওয়ার স্বপ্ন দেখছেন।