জন্মদিনে টেন্ডুলকারকে ‘অপমান’ অজি ক্রিকেট বোর্ডের

By: অরিত্র অনিকেত 2018-04-24 21:00:42 খেলাধুলা
ছবিঃ শচীন টেন্ডুলকার

ক্রীড়া ডেস্ক : ভারতীয় ক্রিকেটপ্রেমীদের কাছে ২৪ এপ্রিল দিনটি উৎসবের থেকে কম কিছু নয়। যে দেশে ক্রিকেটকে ধর্ম বলে মনে করা হয়, সেই দেশে ক্রিকেটের ঈশ্বরেরই যে এদিন আবির্ভাব হয়েছিল। আর প্রত্যেকবারের এবারও তাই শুভেচ্ছার বন্যায় ভাসছেন শচীন টেন্ডুলকার। কিন্তু এমন বিশেষ দিনে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার এক টুইটে ক্ষুব্ধ ভারতীয়রা। মাস্টার ব্লাস্টারকে এহেন ‘অপমান’ কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না নেটিজেনরা। তাই সোশ্যাল মিডিয়ায় শুরু হয়েছে ঘোর বিতর্ক।

ইমরান খান থেকে ম্যাগ্রা, ব্যাট হাতে বিশ্বের কোনো বোলারকেই রেয়াত করেননি মাস্টার ব্লাস্টার। সেই কারণেই তার তুলনা টানা হয় স্যার ডন ব্র্যাডম্যানের সঙ্গে। সেই কারণেই তাকে ঈশ্বরের আসনে বসান তাবড় তাবড় ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরাও। সেই কারণেই ১০০ সেঞ্চুরির একাই মালিক থাকতে পারেন তিনি। কিন্তু শচীনের জন্মদিনে যে এভাবে কটাক্ষ করবে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট বোর্ড, তা হয়তো কেউই ভাবেননি। শুভেচ্ছা জানানো তো দূর, উলটে একপ্রকার অপমানই করা হয়েছে কিংবদন্তি ব্যাটসম্যানকে। শুধুমাত্র এটা বোঝানোর জন্য, যে বিশ্ব ক্রিকেটে অস্ট্রেলিয়াই সেরা।

মঙ্গলবার ভারত বনাম অস্ট্রেলিয়া ম্যাচের একটি পুরোনো ভিডিও পোস্ট করেছে অজি বোর্ড। যেখানে শচীনের বিপক্ষে বল করছেন অজি পেসার ড্যামেন ফ্লেমিং। আর অজি তারকার সেই ডেলিভারিতেই বোল্ড শচীন। ভিডিওর নিচে লেখা, ‘কিছু সুবর্ণ মুহূর্ত। হ্যাপি বার্থডে ড্যামিয়েন ফ্লেমিং।’ আর এই পোস্ট দেখেই মেজাজ হারিয়েছেন ভারতীয় ক্রিকেটভক্তরা। ফ্লেমিংকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানাতে গিয়ে একইদিনে জন্মানো শচীনের আউটের ভিডিওটি ব্যবহার বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মত নেটিজেনদের। মাস্টার ব্লাস্টারকে ইচ্ছাকৃতভাবে অপমান করতেই এমনটা করা হয়েছে বলে মনে করছেন তারা।

Some @bowlologist gold from the man himself - happy birthday, Damien Fleming! pic.twitter.com/YcoYA8GNOD

— cricket.com.au (@CricketAus) April 24, 2018

ফ্লেমিং এবং শচীন সমসাময়িক ক্রিকেটার। আন্তর্জাতিক মঞ্চে বহুবার মুখোমুখি হয়েছেন তারা। হাত ঘুরিয়ে মোট সাতবার শচীনকে প্যাভিলিয়নের রাস্তা দেখিয়েছেন অজি তারকা। কিন্তু শচীনও তো কম যান না। ফ্লেমিংয়ের সুইংকে বাউন্ডারির বাইরে পাঠিয়েছেন অনেকবার। এমনকি ১৯৯৮-এ শারজায় সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে কার্যত একাই টিম ইন্ডিয়াকে কোকা কোলা কাপ জিতিয়েছিলেন মাস্টার ব্লাস্টার। সেবারও উলটোদিকে ছিলেন অস্ট্রেলিয়ার ফ্লেমিংয়ের। তাই শচীনের শুভদিনে অজি ক্রিকেট বোর্ডের এমন বিদ্রুপে ক্ষুব্ধ নেটিজেনরা।