'আম্মাজান' খ্যাত শবনম ফিরছে !

By: অরণ্য শোয়েব 2018-12-09 12:51:08 বিনোদন
ছবিঃ shobnom

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রাপ্ত পরিচালক কাজী হায়াৎ পরিচালিত ‘আম্মাজান’ সিনেমায় সবশেষ  বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের কিংবদন্তী নায়িকা শবনম কে অভিনয়ে দেখা গেছে।  সিনেমায় নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন তিনি। এরপর বিগত দুই দশকে তাকে আর নতুন কোন সিনেমায় অভিনয় করতে দেখা যায়নি। তবে বেশ কিছু সিনেমা’তে অভিনয়ের প্রস্তাব পেলেও শেষ পর্যন্ত গল্প, চরিত্র তার মনকে খুব বেশি টানেনি বিধায় সেসব সিনেমাতে অভিনয় করেননি তিনি।

তবে এরইমধ্যে তার দীর্ঘদিনের কর্মস্থল পাকিস্তান থেকে একটি ধারাবাহিক নাটকে অভিনয়ের জন্য প্রস্তাব পেয়েছেন। চলতি বছরই এই ধারাবাহিকের শুটিং-এর জন্য বেশ কয়েকমাস টানা পাকিস্থানে শুটিং করেও এসেছেন তিনি। সেখানে বেশ কয়েক পর্বেও শুটিং শেষে গেলো মাসের মাঝামাঝি সময়ে তিনি ঢাকায় ফিরেছেন। আলী তাহেরের নির্দেশনায় ফাসেহ বারী খানের রচনায় ‘মোহিনী ম্যানসন কী সিনড্রেলা’ নামক একটি ধারাবাহিকের কাজ করছেন তিনি। ধারাবাহিকটির কেন্দ্রীয় চরিত্রে শবনমই অভিনয় করছেন। এরইমধ্যে গেলো ৩ ডিসেম্বর থেকে পাকিস্তানের একটি প্রাইভেট চ্যানেলে এর প্রচারও শুরু হয়েছে। 

শবনম বলেন,‘ বহুবছর পর অভিনয়ের জন্য ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়েছি। আলী তাহেরের বাবা আমার পূর্ব পরিচিত ছিলেন। যে কারণে তারই আগ্রহে এই ধারাবাহিকে আমার কাজ করা। ধারাবাহিকের গল্প বলা যায় আমাকে কেন্দ্র করেই এগিয়ে যাবে। আমি আলী তাহেরের ইউনিটে কাজ করে ভীষণ সন্তুষ্ট। সবচেয়ে বড় কথা হলো গেলো ৩ ডিসেম্বর থেকে ধারাবাহিকটির প্রচার শুরু হয়েছে। প্রথম দিন থেকেই দর্শক ধারাবাহিকটি বেশ ভালোভাবে গ্রহণ করে নিয়েছে। জানতে পেরেছি যে বহু বছর পর দর্শক আমার অভিনয় দেখে উচ্ছাস প্রকাশ করছে। এটাই অভিনেত্রী হিসেবে আমার সফলতা, আমার ভালোলাগা।’ 

শবনম জানান ‘মোহিনী ম্যানসন কী সিনড্রেলা’ চ্যানেলে প্রচারের পর ইউটিউবেও দেখা যাচ্ছে। 

এদিকে চার দশকেরও বেশি সময় আগে শবনম নাদিমের সঙ্গে জুটিবদ্ধ হয়ে পাকিস্তানে ‘আয়না’ নামের একটি সিনেমায় অভিনয় করেছিলেন। নজরুল ইসলাম নির্দেশিত এটি পাকিস্তানের একটি ব্যবসা সফল সিনেমা। এই সিনেমায় অভিনয় করে শবনম ‘নিগার অ্যাওয়ার্ড’ও পেয়েছিলেন। এই সিনেমাই নতুন করে নির্মাণ করবেন আলী নূর। যার নাম হবে ‘আয়না-টু’। নায়ক রাজ রাজ্জাকের বিপরীতে শবনম বাংলাদেশে অশোক ঘোষ পরিচালিত ‘নাচের পুতুল’ সিনেমাতে অভিনয় করে বেশ প্রশংসিত হয়েছিলেন। 

এই সিনেমার ‘আয়নাতে ঐ মুখ দেখবে যখন’ এখনো দর্শকের মুখে মুখে ফিরে। অভিনয় জীবনের শুরুতেই শবনম এদেশে ‘এদেশ তোমার আমার’, ‘রাজধানীর বুকে’, ‘হারানো দিন’ সিনেমায় অভিনয় করেন। এরপর তিনি ‘সন্ধি’, ‘সন্দেহ’, ‘কারণ’, ‘শর্ত’, ‘সহধর্মিনী’, ‘যোগাযোগ’, ‘বশিরা’, ‘জুলি’, ‘দিল’সহ আরো অনেক সিনেমায় অভিনয় করেন।