সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক জয় চৌধুরী

ঢাকাই সিনেমার ‘চকলেট বয়’ বলা হয় ‘হিটম্যান’ খ্যাত বা ‘অন্তর জ্বালা’ ইয়ংষ্টার চিত্রনায়ক জয় চৌধুরীকে ।

তিনি কারণে অকারণে বার বার এসেছেন খবরের শিরোনামে। হিটম্যান বা অন্তরজ্বালা আজব প্রেম বেশ কিছু ছবি তাকে আলোচিত করেছে বারবার ।

সম্প্রতি এই চিত্রনায়ক জয় চৌধুরী ভিন্ন একটি সংগঠনের সাথে যুক্ত হয়েছেন ।মাগুরা জেলা খেলোয়াড় কল্যাণ সমিতির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক পদে কার্যকর হয়েছেন । এই সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা উপদেষ্টা এডঃ সাইফুজ্জামান শেখর এই প্রথমবার সংগঠনের কমিটি প্ৰদান করা হয়েছে এবং চার বছরের কার্যকাল মেয়াদি থাকছে ।

মাগুরা জেলা খেলোয়াড় কল্যাণ সমিতির সভাপতি নির্বাচিত হলেন , এডঃ শাকারুল ইসলাম শাকিল এবং সাধারণ সম্পাদক হলেন এডঃ জিল্লুর রহমান লাজুক ও সাংগঠনিক সম্পাদক হলেন শেখ মনসুর ইসলাম ।

চিত্রনায়ক জয় চৌধুরী ছোটবেলা থেকেই ক্রিকেট খেলার সাথে একটি অদ্ভুত মায়াজালে আচ্ছন্ন ছিলেন । ২০০০ সন থেকে তিনি মাগুরা জেলার বিভিন্ন অলিতে গলিতে খেলেছেন । এবং ২০০০ সনের পরে ২০০৪ সল্ পর্যন্ত মাগুরা জেলার বিভিন্ন সেক্টরে ছিলেন তিনি । এছাড়াও বিকেএসপিতে অংশগ্রহণ করেছেন এবং মাগুরাতে দুইবার বিকেএসপি ক্যাম্পাইনে তিনি প্রতিনিধিত্ব করেছেন ।

জয় চৌধুরীর সাথে কথা হলে তিনি বলেন , আমি তো ছোট বেলা থেকেই ক্রিকেট পাগলা ছিলাম । ছুটে যেতাম মাগুরা শহরের বাহিরেও , এর জন্য বাসায় বকাবকি কম শুনতে হয়নি আমার ।

এই হিটম্যান আরো বলেন , আমি ২০০৬ -০৮ পর্যন্ত ‘সূর্য তরুণ’ ঢাকা লিগে এর হয়ে খেলেছি । সেকেন্ডিভিশন পর্যন্ত সুযোগ পেয়েছি | কিন্তু শেষ পর্যন্ত খেলাটা ধরে রাখতে পারলাম না , এরপরে মনোয়ার হোসেন ডিপজল চাচ্চু আমাকে সিনেমার নায়ক করে দিলেন । তবে মনে পরে সেই দিনগুলোর কথা । শেষ কথা হচ্ছে, আমি গর্ববোধ করছি আমাকে এই সংগঠনের একজন কর্মী করার জন্য । আমি ধন্যবাদ জানাই প্রতিষ্ঠানের সংশ্লিষ্ট সবাইকে ।

কয়েকদিন পরেই শিল্পী সমিতির নির্বাচন , এই নির্বাচনে অংশহগ্রহন করবেন কিনা জানতে চাইলে জয় বলেন , এখনো তো কয়েকটা দিন বাকি আছে ,একটু পরেই না ‘হয় বলি । তবে এতটুকু বলতে পারি সমিতির জন্য কিছু করার আমারও ইচ্ছা আছে । এবং সেই ইচ্ছাটুকু পূরণ করতে হলে আসনের প্রয়োজন আছে | বাকি কথা সংবাদ সম্মেলনের দিন বলবো ।

বর্তমানে জয়ের দুটো সিনেমার শুটিং চলমান এবং আগামী মাসে ভেল্কিবাজি ও নসিব নামক দুটো সিনেমার শুটিং হওয়ার কথা রয়েছে | এছাড়াও অবাস্তব ভালোবাসা ,ভালোবাসি বোঝাবো কেমনে, ও কাকতাড়ুয়া ছবিগুলোর সেন্সর হয়ে আছে ,এখন শুধু মুক্তির অপেক্ষায় |

 

উল্লেখ্য