রূপ দেখাইলো নবনীতা

(অরণ্য শোয়েব) -নবনীতা চৌধুরী সংবাদমাধ্যমের মানুষ হিসেবেই সকলের কাছে একটু বেশি পরিচিত। গেল বছর ‘আহারে সোনালি বন্ধু’ শিরোনামে মরমী কবি ও বাউল শিল্পী হাছন রাজার গান নিয়ে এসেছিলেন। সেখান থেকে অনেকে নতুন করে জানেন, তিনি ভালো গাইতেও পারেন। আবারও হাজির হলেন হাছন রাজার আরেক গান নিয়ে। এ গানের শিরোনাম ‘রূপ দেখিলাম’।

নতুন এই গানটির সংগীতায়োজন করেছেন লাবিক কামাল গৌরব। তিনি নবনীতার স্বামীও। ভিডিও নির্মাণ করেছেন ওয়াহিদ তারেক।৬ তারিখে জি-সিরিজের ইউটিউব চ্যানেলে নবনীতার ‘রূপ দেখিলাম’ গানটি প্রকাশ পেয়েছে।

দেশের শীর্ষস্থানীয় সাংবাদিক ও উপস্থাপকদের একজন নবনীতা চৌধুরী। সংবাদভিত্তিক টেলিভিশন চ্যানেল ডিবিসি নিউজে সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি রাজনৈতিক টকশো ‘রাজকাহন’-এর সঞ্চালক হিসেবে তিনি বর্তমানে ব্যাস্ত সময় পাড় করছেন।

নবনীতা ও তার জীবনসঙ্গী লাবিক কামাল গৌরবের বন্ধুত্ব, প্রেম, ভালবাসা, বিয়ে, সংসার সবকিছুর সূচনা ওই গান দিয়ে। খুব ছোটবেলা থেকেই রবীন্দ্র বিশেষজ্ঞ ওয়াহিদুল হকের ছাত্রী ছিলেন নবনীতা। কৈশোর থেকেই লালন আর লোকগানের চর্চায় আগ্রহী হয়ে ওঠেন তিনি।

তিনি জানান, আসছে ঈদে তার পুরো একটি অ্যালবাম প্রকাশ পাবে। নবনীতার ‘আহারে সোনালি বন্ধু’ অ্যালবামে থাকবে ৯টি গান। হাসন রাজার গান ছাড়াও এখানে থাকছে রাধারমণ, শিতালং শাহ, রসিকলাল দাস, লালন সাই ও রবীন্দ্রনাথের গান।

২০০৭ সালে আইয়ুব বাচ্চুর সঙ্গীতায়োজনে নবনীতার প্রথম অ্যালবাম ‘আমি যন্ত্র, তুমি যন্ত্রী’ প্রকাশ পাওয়ার সময় নবনীতা চৌধুরী লন্ডনে বিবিসি রেডিওতে সাংবাদিকতা করছিলেন। লন্ডনে বসবাসরত সিলেটের মানুষরা লোকগানের শিল্পীদের নানা আসরের আয়োজন করতো, সেখানে সিলেটের আঞ্চলিক গান পরিবেশন হতো। তখন থেকেই নবনীতার আঞ্চলিক গানের প্রতি ভালোবাসাটা একটু বেশি তৈরী হয়।