রাঙ্গাবালীতে কীটনাশক পানে গৃহবধুর মৃত্যু

রাঙ্গাবালী প্রতিনিধি (জাওয়াদুল কবির প্রিতম) : স্বামীর সাথে অভিমান করে পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলায় কীটনাশক পানে রিপা বেগম(২০) নামের এক গৃহবধুর মৃত্যু হয়েছে। গতকাল শুক্রবার রাত ৯টার দিকে উপজেলার সদর ইউনিয়নের জুগির হাওলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

 

আজ শনিবার সকালে নিহতের লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। নিহত ওই গৃহবধু জুগির হাওলা গ্রামের ফরিদ প্যাদার স্ত্রী।

 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বছর দুয়েক আগে ফরিদ প্যাদার সাথে রিপা বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই সংসারে বিভেদ চলছে। ফরিদ ঢাকাতে দিনমুজুরের কাজ করতো। তার স্ত্রী বাপের বাড়িতে থাকতো। মুঠোফোনে তাদের সাথে যোগাযোগ ছিল। এরইমধ্যে ফোনে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া বাধে। পরে স্ত্রীকে না বলেই ঢাকা থেকে বাড়িতে চলে আসেন ফরিদ। এ কারণে স্বামীর প্রতি ক্ষুদ্ধ হয় স্ত্রী। পরে বাপের বাড়ি থেকে শুক্রবার স্বামীর বাড়িতে চলে আসেন সে। এরপর রাত ৯টার দিকে পরিবারের সবার অজান্তে ঘরে থাকা কিটনাশক পান করে আত্মহত্যা করেন।

 

রাঙ্গাবালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো.আলী আহম্মেদ জানান, নিহত গৃহবধুর লাশ উদ্ধার করে পটুয়াখালী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট বের হলে তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

 

সর্বশেষ