মারুফ আকিবের ব্যস্ততা

(অরণ্য শোয়েব )- মারুফ আকিব ‘সৈনিক’ নামের একটি বাল্বের মডেল হয়ে মিডিয়াপাড়াতে অভিষেক ঘটে এক সময়ের এই জনপ্রিয় চিত্রনায়কের । ১৯৯৩ সালে এফডিসিতে নতুন মুখের সন্ধানে উঠে এসেছিলেন এ-নায়ক, এর সাথে আরো এসেছেন আমিন খান ।

মনোয়ার হোসেন খোকন পরিচালিত ‘জ্যোতি’ সিনেমার মধ্যে দিয়ে মূলত বড় পর্দায় জায়গা করে নেন মারুফ আকিব । ত্রিভুজ প্রেমের এই গল্পের আরেক নায়ক ছিলেন অমিত হাসান । ছবিটি তখনকার সময়ে সুপারহিট হয় । এরপরে মারুফকে আর পিছনে তাকাতে হয়নি , প্রায় চল্লিশটির মতোন সিনেমায় তিনি কেন্দ্রীয় নায়কের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন ।

নায়িকা হিসাবে পেয়েছিলেন তিনি , শাবনূর ,শাহনাজ ,রেবেকা ,তৃস্না, আঁচল, সংগীতা, ময়ূরী , মুনমুন ,পূর্ণিমা , পপি , মৌসুমী , শিল্পী , শাহনুরসহ তখনকার সময়ের সুপারহিট সব নায়িকাদের ।

চিত্রনায়ক মারুফ আকিবের সাথে এক ছবিতে আরো ছিলেন ইলিয়াস কাঞ্চন , আমিন খান , অমিত হাসান , রিয়াজ , ফেরদৌস , মান্না , শাকিব খান , এবং বর্তমান সময়ের জায়েদ খান , বাপ্পি এবং সাইমন অনেক নায়ক ।

কবরী ,রাজ্জাক ,ববিতা ,ফারুক , সোহেল রানা ,দিতি , শাবানা , আলমগীর , জসিম, সুচরিতা ,রাজীবসহ বাবা মায়ের ভাই বোনের চরিত্রতে পেয়েছেন তিনি ।

সময়সাময়িক ব্যস্ততা নিয়ে মারুফ আকিব বাংলা প্রতিদিন ডটকমকে জানান , প্রায় এক ডজন ছবির বর্তমানে শুটিং চলমান । এবং আরো কয়েকটি নতুন ছবির কথা চলছে । এক সময়ে এর চেয়ে বেশি ব্যস্ততা ছিল, কারণ তখন কেন্দ্রীয় নায়কের ভূমিকায় কাজ করেছি ,তবে কালের বিবর্তনে বদলে গেছে অনেক কিছু । এখন নিজেকে বিভিন্ন চরিত্রে রূপান্তরিত করছি গল্পের কারণে , প্রথম কথা হচ্ছে আমি একজন অভিনেতা , নিজেকে কখনো নায়ক হিসেবে পরিচয় দিতে স্বাচ্ছন্দবোধ করেনি ।

মারুফ আরো বলেন , একজন অভিনেতা এক চরিত্রে আটকে থাকতে পারেনা । আমিও দুই একটা নাটক সিরিয়ালেও কাজ করেছি , জনপ্রিয় সিরিয়াল বাংলা ভিশনে গুলশান এভিনিউ এবং লাল নীল বেগুনি তে কাজ করেছি । প্রচুর প্রশংসা এবং ভালোবাসা পেয়েছি দর্শকদের কাজ থেকে । গেলো কোরবানির ঈদে ‘রাজমকুমার ‘ নামে একটি ওয়েব সিরিজে কাজ করছি , সিনেমার গল্প নিয়ে দারুন একটি কাজ ছিল , এটির বেশ ভালো সাড়া পেয়েছি । সরকারি আমলা কর্মচারীরা এক সময় কর্মক্ষেত্র থেকে অবসর নেয় কিন্তু একজন অভিনেতা পর্দায় থাকেন ততক্ষন যতক্ষণ বেঁচে থাকেন ,তাদের কোনো অবসর নেই ,তাই নিয়মিত কাজ করে যেতে চাই ।

মারুফ আকিবের সর্বশেষ ছবি ছিল – অন্ধকার জগৎ , এবং বয়ফ্রেন্ড তবে দর্শক নন্দিত হয় জান্নাত ছবিতে ।

বর্তমানে শুটিং চলছে আগুন , তোলপাড় , রাগী, মন দেবো মন নেবো , আনন্দ অশ্রু , গোপন সংকেত , স্বপ্নে দেখা রাজকন্যা , বেসামাল ছবির । এর মধ্যে বেশ কয়েকটি ছবির শুটিং শেষ এবং মুক্তির কথা চলছে ।

প্রসঙ্গত মারুফ আকিবের – চিরশত্রু , আব্বাস দারোয়ান , ভালোবাসার লাল গোলাপ , পিতামাতার আমানত , জ্যোতি , ঘর-দুয়ার , জান আমার জান , বাপ্ বেটির যুদ্ধ , মুক্তির সংগ্রাম , সৎ মানুষ , কিং খান , দুষ্ট ছেলে মিষ্টি মেয়ে , রূপ নগরের রাজকন্যা , কে অপরাধী , গরিব এর মন অনেক বড়, অজানা শত্রু , দুই নাগিন , অন্যতম সেরা এবং জনপ্রিয় ছবি ।

মারুফ আকিবের নিজস্ব প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ‘প্রতিচ্ছবি ‘ থেকে চার থেকে পাঁচটি নাটক অবমুক্ত করা হয় তখন ।