মানবসেবায় কাউন্সিলর নাজমুন নাহার হেলেন

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিশ্বজুড়ে নভেল করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়ছে মানুষ। অন্য সব লড়াই হাতে হাত রেখে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে করতে হলেও এ লড়াই একটু ভিন্ন রকম। ছোঁয়াচে এ রোগের বিস্তার ঠেকাতে হলে সামাজিক দুরত্বের বিকল্প নেই। তাই এ লড়াইয়ের একটাই স্লোগান ‘ঘরে থাকুন, নিরাপদে থাকুন’। ইতোমধ্যে অনেক কাউন্সিলর নিজেদের জায়গা থেকে সাধারণ জনগণকে সচেতন করছেন। আবার অনেকেই রাস্তায় নেমে পাশে দাঁড়িয়েছেন সাধারণ মানুষের। করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে জরুরি প্রয়োজনে ঘর থেকে বের হওয়া নিষেধ। এ অবস্থায় দিনমজুর হিসেবে যাঁরা কাজ করেন, তাঁরা পড়েছেন বিপাকে।

কারণ, তাঁরা প্রতিদিন যে টাকা পান, তা দিয়ে চলে সংসার। না খেয়ে থাকার মতো অবস্থা হয়েছে তাঁদের। আর এই অসহায় মানুষগুলোর পাশে দাঁড়িয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের ২৪, ২৫ ও ৩৫ এর কাউন্সিলর নাজমুন নাহার হেলেন। এরইমধ্যে তিনি তার ওয়ার্ডের নিম্নআয়ের মানুষের সহযোগিতা করেছেন। সবার ঘরে ঘরে রাতের আঁধারে তার কর্মীদের দিয়ে নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্র্যদ্রব্য পৌঁছে দিয়েছেন। এ পর্যন্ত ১৫০০ মতো নিম্নআয়ের মানুষদের তার সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। আজ ১ মে বিশ্ব শ্রমিক দিবস উপলক্ষ্যে ফের সাধারণ মানুষদের মাঝে খাদ্যদ্রব্য বিতরণ করেন। যতদিন করোনা ভাইরাস থাকবে ততদিন তার সহযোগিতা অবহ্যাত থাকবে বলে তিনি জানান।

কাউন্সিলর নাজমুন নাহার হেলেন বলেন, বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাস মহামারি আঁকার ধারন করেছে। ক্রমেই এই ভাইরাসের সংক্রমণ বেড়েই চলছে। এ রোগ থেকে মুক্তি পাওয়ার একমাত্র উপায় ঘরে থাকা। এ রোগ থেকে মুক্তি পেতে ঘরে থাকার কারনে বিপাকে পড়েছেন নিম্নআয়ের মানুষরা। তাই তাদের কথা চিন্তা করে দেশের দুর্দিনে পাশে থাকার চেষ্টা করেছি। যতদিন করোনা থেকে আমরা মুক্তি না পাচ্ছি ততদিন এ সহযোগিতা চলমান থাকবে। এছাড়াও জনসচেতনতায় এলাকায় আমার কর্মীরা কাজ করছে। আমরা একটু সচেতন হলেই এ ভাইরাস থেকে মুক্তি পেতে পারি। তাই পরিশেষে সকলের কাছে আমার অনুরোধ আপনারা ঘরে থাকুন। নিজে ভালো থাকুন, অন্যকে ভালো রাখুন।