বি-টাউনে প্রথমবার অরিন্দম শীল

(অরণ্য শোয়েব)-অরিন্দম শীল ওপার বাংলার জনপ্রিয় একজন নির্মাতা সাথে ভালো অভিনেতাও বটে । কলকাতা বাংলায় বেশ কিছু জনপ্রিয় এবং ব্যবসাসফল ছবি উপহার দিয়েছেন তিনি ।

এখন টালিগঞ্জ থেকে হরহামেশাই বি-টাউনে ছুটছেন অভিনেতা অভিনেত্রী এমনিক নির্মাতারাও । শোনা গেছে শিগগিরই জুহুর হোটেলগামী হয়ে তাঁর প্রথম হিন্দি ছবির কাজ শুরু করছেন অরিন্দম শীল।এবং রয়েছে নেটফ্লিক্সেরও অফার।

একটি নয়, রয়েছে দু-দুটি হিন্দি ছবির অফার পেয়েছেন অরিন্দম। একটি নেটফ্লিক্সের, অন্যটি আলাদা একটি প্রযোজনা সংস্থা। একটি ছবির কনট্র্যাক্ট সাইন হয়ে গিয়েছে। পরের বছরের গোড়ার দিকে সেই ছবির শুটিং শুরু হওয়ার কথা। নেটফ্লিক্সের অফারও এসে গিয়েছে, ছবির শুটিং হবে পরের বছরের মাঝামাঝিতে।

অরিন্দম শীলের এ-ব্যাপারে তিনি বলেন , এই মুহূর্তে সেটা আমার পক্ষে বলা সম্ভব না। এটুকু বলতে পারি এক নামী প্রযোজনা সংস্থা ছবিটি বানাচ্ছে। তারা অফিসিয়াল অ্যানাউন্সমেন্ট করার আগে তাদের নামও এই মুহূর্তে বলা বারণ। এটুকু বলতে পারি অরিজিৎ বিশ্বাসকে নিয়ে আমার স্ক্রিপ্ট লেখার কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে।” হেসে জানালেন অরিন্দম। যা খবর, অজয় দেবগণ, সাইফ আলি খান, সৌরভ শুক্লা থাকতে পারেন অরিন্দমের প্রথম হিন্দি ছবিতে।

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালে অনির্বাণ ভট্টাচার্য-মিমি চক্রবর্তীকে নিয়ে এসভিএফ-এর ব্যানারে ১৪ বছরের হেতাল পারেখের ধর্ষণ নিয়ে সিনেমা বানিয়েছিলেন অরিন্দম। সেই সময় ছবির বিষয়বস্তু নিয়ে কম বিতর্কও হয়নি শহরজুড়ে। যদিও প্রত্যাশা অনুযায়ী ছবিটা চলেনি। অধুনা সাংসদ মিমি করেছিলেন ধর্ষিতা মেয়েটির আইনজীবীর রোল। আর ধনঞ্জয় চরিত্রে ছিলেন অনির্বাণ।