না ফেরার দেশে ভাষা-আন্দোলন গবেষক এম আর মাহবুব

নিজস্ব প্রতিবেদক: না ফেরার দেশে বিশিষ্ট ভাষা-আন্দোলন গবেষক জনাব এম আর মাহবুব। মঙ্গলবার (২১ এপ্রিল) রাত ১০:৪০ মিনিটে ঢাকার ধানমন্ডিস্থ আনোয়ার খান মডার্ণ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মস্তিস্কজনিত রোগে ইন্তেকাল করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তিনি ঐতিহাসিক ভাষা আন্দোলনের সময়ে গঠিত সর্বদলীয় রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদের আহ্বায়ক এডভোকেট কাজী গোলাম মাহবুব কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত ‘ভাষা আন্দোলন গবেষণাকেন্দ্র ও জাদুঘর’ এর নির্বাহী পরিচালক ছিলেন।

তিনি ১৯৬৯ সালের ১৫ অক্টোবর নরসিংদী জেলার মনোহরদী উপজেলার চর আহম্মদপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ব্যবস্থাপনায় স্নাতক সম্মান ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন। জনাব এম.আর মাহবুব বিগত তিন দশক ধরে ভাষা-আন্দোলনের স্মৃতি সংরক্ষণ, স্মারক সংগ্রহ, ইতিহাসচর্চা ও শেকড়সন্ধানী গবেষণায় যুক্ত ছিলেন। তিনি ‘ভাষা-আন্দোলন স্মৃতিরক্ষা পরিষদ’ এবং ‘একুশে চেতনা পরিষদ’ এর সাথেও সাংগঠনিক ভাবে
সম্পৃক্ত ছিলেন।

তিনি ২০১০-২০১১ সনে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন জাতীয় কমিটির সদস্য ছিলেন। বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটি’র ‘বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ এনসাইক্লোপিডিয়া প্রকল্প’ নরসিংদী জেলা’র সমন্বয়কারী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। দীর্ঘদিন একনিষ্ঠ শ্রম ও সাধনায় সংগ্রহ করেছেন ভাষা-আন্দোলনের দুর্লভ দলিল, তথ্যাবলি, অপ্রকাশিত ছবি, স্মৃতিস্মারক ও ভাষা সংগ্রামীদের গৌরবদীপ্ত অবদানের স্মৃতিকথা।

ভাষা আন্দোলনের স্মৃতিসংরক্ষণ, ইতিহাসচর্চা ও গবেষণা ছিল তাঁর একমাত্র ধ্যানজ্ঞান ও নেশা। ভাষা আন্দোলনের উপর তিনি পঞ্চাশটিরও অধিক গ্রন্থ রচনা ও সম্পাদনা করেছেন। ২০১৭ সালে তাঁর সংকলিত ও সম্পাদিত ‘সংবাদপত্রে ভাষা আন্দোলন: ১৯৪৭ থেকে ১৯৫৬’ ভাষা আন্দোলনের ইতিহাস গবেষণার ক্ষেত্রে একটি অনন্য গ্রন্থ। ভাষা আন্দোলনের উপর এত ব্যাপক তথ্যসমৃদ্ধ গবেষণাধর্মী গ্রন্থ এর আগে এদেশে আর প্রকাশিত হয়নি। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী এলমুন্নাহার লিপি, একমাত্র কন্যা সাবিহা মাহবুব মাহী, আত্মীয়-স্বজন ও অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গিয়েছেন।

সর্বশেষ