গৃহবন্ধী কর্মহীন পরিবারের পাশে যুবলীগ নেতা সোহেল শাহরিয়ার

শাকিলুর রহমান : করোনাভাইরাস আতঙ্কে আজ সারাদেশে। প্রাণঘাতি এই ভাইরাস নিয়ে সরকার, রাজনৈতিক নেতা ও প্রশাসনের পাশাপাশি দেশের শোবিজ অঙ্গনের তারকারাও নানাভাবে মানুষকে সচেতন করে যাচ্ছেন। নিচ্ছেন নানা পরামর্শ। বন্ধ হয়েছে দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সহ সকল অফিস আদালত।

করোনাভাইরাস মোকাবেলায় লকডাউনের ফলে সাময়িক কর্মহীন হয়ে পড়েছে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ। দিনমজুর এবং দরিদ্র জনগোষ্ঠীর জীবিকা নির্বাহ করা কঠিন হয়ে পড়েছে। এই সব অসহায় দিনমজুর মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণের আওয়ামী যুবলীগ নেতা সোহেল শাহরিয়ার রানা। তিনি ব্যাক্তিগত উদ্যোগে রাত জেগে রাজধানীর বিভিন্ন বাসায় বাসায় গিয়ে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিয়েছেন।

যুবলীগ নেতা সোহেল শাহরিয়ার রানা জানান, ‘তিনি ব্যাক্তিগত উদ্যোগে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের পক্ষে শাহজাহানপুর, আরামবাগ, কমলাপুর, শান্তিনগর এলাকায় অসহায়দের মাঝে বিভিন্ন খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন। এছাড়াও ভ্যান ও পিকআপে করে অসহায় মানুষের বাসায় বাসায় গিয়ে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিয়েছেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে সোহেল শাহরিয়ার রানা বলেন, ‘যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ ও সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিলের নির্দেশনায় করোনা প্রতিরোধে আমরা যুবলীগের কর্মীদের নিয়ে সক্রিয় রয়েছেন। ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাধারণ মানুষকে করোনাভাইরাস থেকে রক্ষায় ব্যক্তিগত উদ্যোগে প্রথমে সচেতনামূলক লিফলেট বিতরণ, বিনামূল্যে মাস্ক, হ্যান্ড ওয়াশ, স্যানিটাইজার, হেক্সিসলসহ জীবাণুনাশক স্প্রের সামগ্রী বিতরণ করেছি।

তিনি আরও বলেন, ‘পরবর্তীতে অঘোষিত লকডাউন শুরুর পর গত তিনদিন থেকে আমরা ঢাকার বাসায় গৃহবন্ধী কর্মহীন পরিবারের মাঝে বিভিন্ন খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করে আসছি। আমাদের সামর্থ্য অনুযায়ী চেষ্টা করেছি। এছাড়াও যতো দিন এই দুর্যোগময় পরিস্থিতি থাকবে ততো দিন এই কার্যক্রম অব্যাহত রাখবো। সামনে আরও বেশি অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে চেষ্টা করবো। আর সম্ভব হলে আপনার আশে পাশের গরীব মানুষগুলোর খোঁজ নিন। তাদের খাদ্য সহায়তা দিন।’

তিনি দেশবাসীর উদ্দেশ্যে বলেন, ‘সবাই নিজের বাসায় সাবধানে থাকুন। আমাদের সবাইকে যার যার জায়গা থেকে সতর্ক থাকতে হবে। প্রয়োজনে কিছু দিন ঘরে থাকতে হবে। আমরা যদি সতর্ক না থাকি, তা হলে এই ভাইরাস ছড়াতে বেশি সময় লাগবে না। সে জন্য আগে থেকেই সতর্ক থাকতে হবে। মানুষের জন্য লড়াই, বেচেঁ থাকার জন্য লড়াই, একটি মুখের হাসির জন্য লড়াই।’

উল্লেখ, কিছু দিন আগে করোনাভাইরাস এড়াতে জনসচেতনতামুলক কার্যক্রমের অংশ হিসেবে সাধারণ মানুষকে মাস্ক বিতরণ করেন সোহেল শাহরিয়ার। শান্তিনগর, কাকরাইল, রাজারবাগ পুলিশ লাইন সংলগ্ন এলাকায়ও এসব মাস্ক বিতরন করা হয়।